1. admin@shadin-bd.com : admin :
  2. unews.mahmud@gmail.com : Mahmud hasan : Mahmud hasan
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৭:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ -
বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ডে মাধবপুরের প্রবাসীর স্ত্রী ও কন্যা নিহত ভাইস চেয়ারম্যান পদে জমজমাট প্রচারণায় ইমান উল্লাহ শেখ ইমু সংবাদকর্মীর বাড়ীতে হামলার পর এখন আবার দেখে নেয়ার হুমকী অভিযুক্তদের শ্রীপুরে গৃহবধূর দগ্ধ লাশ উদ্ধার, স্বামীসহ পুলিশ হেফাজতে -২ কাপাসিয়ায় নবাগত ইউএনও’র যোগদান ত্রিশালে সুফী চর্চা কেন্দ্রে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীর  মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।  উত্তরা নাইস স্কুল এন্ড কলেজের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়েছে বার্ষিক ক্রীড়া পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান। গাজীপুরে সাবাহ্ গার্ডেনে স্কুল পড়ুয়াদের অসামাজিক কর্মকাণ্ড অব্যাহত কাকে বিয়ে করছেন ডানকি কন্যা তাপসী পান্নু!

চিকিৎসক দম্পতির বাসায় এক গৃহকর্মীর মৃত্যু,পরিবারের অভিযোগ নির্যাতন করে হত্যা।

  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ৪৫ বার পঠিত

চিকিৎসক দম্পতির বাসায় এক গৃহকর্মীর মৃত্যু,পরিবারের অভিযোগ নির্যাতন করে হত্যা।

সফিকুল ইসলাম বাদল ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চিকিৎসক দম্পতির ঘরে তামান্না আক্তার (১৪) নামে এক গৃহকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) বিকেলে শহরের মৌলভীপাড়ার একটি বহুতল ভবনের ফ্ল্যাটে এ ঘটনাটি ঘটে।
নিহত তামান্না কুমিল্লা মুরাদনগরের হিরাকান্দা গ্রামের সুমন মিয়ার মেয়ে। তারা স্বপরিবারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের ভাদুঘর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন।নিহতের বাবা সুমন মিয়া বলেন, প্রায় চার বছর আগে তার মেয়ে তামান্নাকে চিকিৎসক দম্পতি ডা. আনিসুল হক ও তার স্ত্রী চিকিৎসক ইসরাত জাহানের বাসায় গৃহকর্মীর কাজের জন্য দেয়। তবে সম্প্রতি তামান্না তার মাকে জানায় তাকে প্রায় সময় মারধর করত এবং এখান থেকে নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রায় সময়ই বলত। সন্ধ্যায় খবর আসে তার মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। তিনি বিষয়টিকে হত্যাকান্ড দাবী করে তার মেয়ের হত্যাকারীদের সুষ্ঠ বিচারের দাবি জানান।নিহতের মা মুন্নি আক্তার বলেন, প্রায় সময়ই তামান্নার গায়ে আঘাতের চিহ্ন দেখতাম। সে এখান থেকে নিয়ে যাওয়ার কথা বলত। আমি তাকে বলেছিলাম তোমার বাবা এই মাসে অটো কিনবে। এরপর এখান থেকে তুমাকে নিয়ে যাব। আমার মেয়ের সাথে এতটুকুই আমার কথা হয়েছিল। এখন খবর পাই আমার মেয়ে মারা গেছে। আমি এর বিচার চাই।ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা: মির্জা মোহাম্মদ সাইফ জানান, তামান্নাকে হাসপাতালের আনার পর ইসিজি করে দেখা যায় তার মৃত্যু হয়েছে।ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার পরিদর্শক তদন্ত সুমন চন্দ্র বণিক জানান, গৃহকর্মীর মৃত্যুর পেয়ে পুলিশ হাসপাতালসহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনাটির তদন্ত চলছে। মরদেহের ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর সঠিক রহস্য জানা যাবে।
এ দিকে ঘটনার পর পর বাসায় তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে যায় ওই নারী চিকিৎসক। ঘটনাটি শহর জুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।এ বিষয়ে জানতে ডা. আনিসুল হককে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও মুঠোফোনটি তিনি ধরেন নি।চিকিৎসক দম্পতির বাসায় এক গৃহকর্মীর মৃত্যু,পরিবারের অভিযোগ নির্যাতন করে হত্যা।

সফিকুল ইসলাম বাদল ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চিকিৎসক দম্পতির ঘরে তামান্না আক্তার (১৪) নামে এক গৃহকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) বিকেলে শহরের মৌলভীপাড়ার একটি বহুতল ভবনের ফ্ল্যাটে এ ঘটনাটি ঘটে।
নিহত তামান্না কুমিল্লা মুরাদনগরের হিরাকান্দা গ্রামের সুমন মিয়ার মেয়ে। তারা স্বপরিবারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের ভাদুঘর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন।নিহতের বাবা সুমন মিয়া বলেন, প্রায় চার বছর আগে তার মেয়ে তামান্নাকে চিকিৎসক দম্পতি ডা. আনিসুল হক ও তার স্ত্রী চিকিৎসক ইসরাত জাহানের বাসায় গৃহকর্মীর কাজের জন্য দেয়। তবে সম্প্রতি তামান্না তার মাকে জানায় তাকে প্রায় সময় মারধর করত এবং এখান থেকে নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রায় সময়ই বলত। সন্ধ্যায় খবর আসে তার মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। তিনি বিষয়টিকে হত্যাকান্ড দাবী করে তার মেয়ের হত্যাকারীদের সুষ্ঠ বিচারের দাবি জানান।নিহতের মা মুন্নি আক্তার বলেন, প্রায় সময়ই তামান্নার গায়ে আঘাতের চিহ্ন দেখতাম। সে এখান থেকে নিয়ে যাওয়ার কথা বলত। আমি তাকে বলেছিলাম তোমার বাবা এই মাসে অটো কিনবে। এরপর এখান থেকে তুমাকে নিয়ে যাব। আমার মেয়ের সাথে এতটুকুই আমার কথা হয়েছিল। এখন খবর পাই আমার মেয়ে মারা গেছে। আমি এর বিচার চাই।ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা: মির্জা মোহাম্মদ সাইফ জানান, তামান্নাকে হাসপাতালের আনার পর ইসিজি করে দেখা যায় তার মৃত্যু হয়েছে।ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার পরিদর্শক তদন্ত সুমন চন্দ্র বণিক জানান, গৃহকর্মীর মৃত্যুর পেয়ে পুলিশ হাসপাতালসহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনাটির তদন্ত চলছে। মরদেহের ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর সঠিক রহস্য জানা যাবে।
এ দিকে ঘটনার পর পর বাসায় তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে যায় ওই নারী চিকিৎসক। ঘটনাটি শহর জুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।এ বিষয়ে জানতে ডা. আনিসুল হককে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও মুঠোফোনটি তিনি ধরেন নি।চিকিৎসক দম্পতির বাসায় এক গৃহকর্মীর মৃত্যু,পরিবারের অভিযোগ নির্যাতন করে হত্যা।

সফিকুল ইসলাম বাদল ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চিকিৎসক দম্পতির ঘরে তামান্না আক্তার (১৪) নামে এক গৃহকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) বিকেলে শহরের মৌলভীপাড়ার একটি বহুতল ভবনের ফ্ল্যাটে এ ঘটনাটি ঘটে।
নিহত তামান্না কুমিল্লা মুরাদনগরের হিরাকান্দা গ্রামের সুমন মিয়ার মেয়ে। তারা স্বপরিবারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের ভাদুঘর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন।নিহতের বাবা সুমন মিয়া বলেন, প্রায় চার বছর আগে তার মেয়ে তামান্নাকে চিকিৎসক দম্পতি ডা. আনিসুল হক ও তার স্ত্রী চিকিৎসক ইসরাত জাহানের বাসায় গৃহকর্মীর কাজের জন্য দেয়। তবে সম্প্রতি তামান্না তার মাকে জানায় তাকে প্রায় সময় মারধর করত এবং এখান থেকে নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রায় সময়ই বলত। সন্ধ্যায় খবর আসে তার মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। তিনি বিষয়টিকে হত্যাকান্ড দাবী করে তার মেয়ের হত্যাকারীদের সুষ্ঠ বিচারের দাবি জানান।নিহতের মা মুন্নি আক্তার বলেন, প্রায় সময়ই তামান্নার গায়ে আঘাতের চিহ্ন দেখতাম। সে এখান থেকে নিয়ে যাওয়ার কথা বলত। আমি তাকে বলেছিলাম তোমার বাবা এই মাসে অটো কিনবে। এরপর এখান থেকে তুমাকে নিয়ে যাব। আমার মেয়ের সাথে এতটুকুই আমার কথা হয়েছিল। এখন খবর পাই আমার মেয়ে মারা গেছে। আমি এর বিচার চাই।ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা: মির্জা মোহাম্মদ সাইফ জানান, তামান্নাকে হাসপাতালের আনার পর ইসিজি করে দেখা যায় তার মৃত্যু হয়েছে।ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার পরিদর্শক তদন্ত সুমন চন্দ্র বণিক জানান, গৃহকর্মীর মৃত্যুর পেয়ে পুলিশ হাসপাতালসহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনাটির তদন্ত চলছে। মরদেহের ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর সঠিক রহস্য জানা যাবে।
এ দিকে ঘটনার পর পর বাসায় তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে যায় ওই নারী চিকিৎসক। ঘটনাটি শহর জুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।এ বিষয়ে জানতে ডা. আনিসুল হককে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও মুঠোফোনটি তিনি ধরেন নি।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ স্বাধীন বিডি
Theme Customized By Shakil IT Park