1. admin@shadin-bd.com : admin :
  2. unews.mahmud@gmail.com : Mahmud hasan : Mahmud hasan
শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ -
বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ডে মাধবপুরের প্রবাসীর স্ত্রী ও কন্যা নিহত ভাইস চেয়ারম্যান পদে জমজমাট প্রচারণায় ইমান উল্লাহ শেখ ইমু সংবাদকর্মীর বাড়ীতে হামলার পর এখন আবার দেখে নেয়ার হুমকী অভিযুক্তদের শ্রীপুরে গৃহবধূর দগ্ধ লাশ উদ্ধার, স্বামীসহ পুলিশ হেফাজতে -২ কাপাসিয়ায় নবাগত ইউএনও’র যোগদান ত্রিশালে সুফী চর্চা কেন্দ্রে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীর  মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।  উত্তরা নাইস স্কুল এন্ড কলেজের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়েছে বার্ষিক ক্রীড়া পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান। গাজীপুরে সাবাহ্ গার্ডেনে স্কুল পড়ুয়াদের অসামাজিক কর্মকাণ্ড অব্যাহত কাকে বিয়ে করছেন ডানকি কন্যা তাপসী পান্নু!

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলন্ত বাস থেকে ফেলে দিয়ে এক নারীর মৃত্যু 

  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১৫১ বার পঠিত

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলন্ত বাস (তাকওয়া) পরিবহন থেকে ফেলে দিয়ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে, মৃত নারীর নাম চম্পা বেগম(৩২)

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) রাত পৌনে নয়টার দিকে শ্রীপুরের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের এমসি বাজারের তাহের সিএনজি পাম্পের সামনে এ ঘটনা ঘটে।নিহত চম্পা বেগম(৩২) ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জ থানার নিজগাঁও গ্রামের আবুল কালামের স্ত্রী ও চান্দুরা সুরুজ আলীর মেয়ে। চম্পা স্বামীর সঙ্গে গড়গড়িয়া মাস্টারবাড়ি এলাকায় ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি কারখানায় চাকরি করতেন।

চম্পার ভাজিতা সুমন মিয়া জানান, স্বামীর সঙ্গে চম্পা গড়গড়িয়া মাস্টারবাড়ি এলাকায় ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি কারখানায় কাজ করতেন। আর তার ছোট বোন উপজেলার নয়নপুর এলাকায় পরিবার নিয়ে ভাড়া থেকে গার্মেন্টসে কাজ করেন। শুক্রবার ছোট বোনের বাড়িতে তাদের বাবা গ্রাম থেকে বেড়াতে এলে চম্পা বাবার সঙ্গে দেখা করার জন্য ছোট বোনের বাড়িতে আসেন। বাবার সঙ্গে দেখা শেষে গড়গড়িয়া মাস্টারবাড়ি যাওয়ার জন্য নয়নপুর থেকে বাসে উঠেন। বাসটি কিছুদূর যাওয়ার পর বাসের সহকারীর সঙ্গে কোনো এক বিষয় নিয়ে বিতণ্ডা শুরু হলে তাকে চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে একটি হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক চম্পাকে মৃত ঘোষণা করেন।প্রত্যক্ষদর্শী বালুর গাড়ির লেবার জালাল উদ্দিন বলেন, ঘটনার সময় আমরা পাশেই বসেছিলাম। এসময় হঠাৎ তাকওয়া পরিবহনের একটি বাসে শব্দ হয়। পরে আমরা মহাসড়কে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখি।

মাওনা হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইসমাইল হোসেন বলেন, বাস থেকে ফেলে দেওয়ার ঘটনাটি এখনো নিশ্চিত না। আশপাশের প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে তথ্য নেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।

মাওনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কংকন কুমার বিশ্বাস জানান, জড়িত বাসকে শনাক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। বাসটিকে শনাক্ত করা গেলেই প্রকৃত ঘটনা বের হয়ে আসবে। আমরা নারীর মরদেহ পাইনি। শুনেছি তার স্বজনরা হাসপাতাল থেকে লাশ নিয়ে গেছেন।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ স্বাধীন বিডি
Theme Customized By Shakil IT Park