1. admin@shadin-bd.com : admin :
  2. shadinbd@gmail.com : shadin : Nazmul Mondol
সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ -
তীব্র তাপপ্রবাহে রিকশাচালকদের মাঝে পানি ও স্যালাইন বিতরণ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ৮ প্রার্থীকে শোকজ পত্নীতলায় শুরু হয়েছে তিন দিনব্যাপী কৃষি মেলা শ্রীপুরে নেশার টাকা দিতে অস্বীকার করায় মায়ের হাতের রগ কেটে দিয়েছে কুলাঙ্গার সন্তান দুধমুখা স্টার লাইন কাউন্টারে যাত্রী হয়রানীর অভিযোগ শ্রীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই সাংবাদিক আহত দক্ষিনখানে ঈদের ছুটিতে ফাঁকা বাসার ৫টি ফ্ল্যাটে দুর্ধর্ষ চুরি শ্রীপুরের উন্নয়নে নেতাকর্মীদের শর্ত দিয়ে নির্বাচনের ঘোষণা দিলেন – দুর্জয়। মাধবপুরে বিরল প্রজাতির লজ্জাবতী বানর উদ্ধার পরীমণিকে আদালতে হাজির হওয়ার সমন জারি!

তরমুজ চাষে স্বপ্ন বুনছেন নবীন উদ্যোক্তা আমিন ফকির

  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৩ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৭৮ বার পঠিত

তরমুজ চাষে স্বপ্ন বুনছেন নবীন উদ্যোক্তা আমিন ফকির

আমির হোসেন, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলায় সুগন্ধা নদীর চর এলাকাজুড়ে প্রায় ১৪ একর জমিতে তরমুজের চাষ করেছেন নবীন উদ্যোক্তা মোঃ আল আমিন ফকির । কোন প্রকার কীটনাশক ছাড়াই সম্পূর্ণ জৈব পদ্ধতিতে এ তরমুজের আবাদ করেছেন তিনি । এসব তরমুজ স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে আশেপাশের বিভিন্ন জেলায়ও বিক্রি হচ্ছে।

নলছিটি উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, এ বছর আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় নলছিটি৷ উপজেলায় ফলন ভালো হয়েছে। ঝালকাঠি জেলায় এ বছর ৭৭ হেক্টর জমিতে তরমুজের আবাদ হয়েছে এর মধ্যে নলছিটি উপজেলায় ২৮ হেক্টর জমিতে তরমুজের আবাদ হয়েছে।

স্থানীয় বেশ কয়েকজন তরমুজ ক্রেতা জানজন এখানে বিষমুক্ত তরমুজ ক্রয় করতে পারি যা দামেও কম। আমরা সবসময় আল আমিন ফকিরের কাছ থেকে তরমুজ ক্রয় করি। প্রতিবছরই এভাবে তরমুজ চাষ হলে সবাই কম দামে ভালো মানের তরমুজ ক্রয় করতে পারব।

এবিষয়ে তরুন উদ্যোক্তা আল আমিন ফকির বলেন, আমরা ৬ জন মিলে নলছিটি উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সহযোগিতা ও পরামর্শে ১৪ একর জমিতে তরমুজের আবাদ করেছি।এ বছর ফলন ভালো হওয়ায় লাভবান হতে পারবো। আমাদের ৯ লাখ টাকা খরচ হয়েছে সব তরমুজ বিক্রি করতে পারলে ১৬ লাখ টাকার তরমুজ বিক্রি করতে পারবো। নিয়মিত পিষ্ট পোষকতা পেলে দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রপ্তানি করতে পারব।

নলছিটি উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সানজিদ আরা শাওন বলেন,কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে তরমুজ চাষিদের সব ধরণের পরামর্শ ও সহযোগিতা করা হয়েছে। আশা করা যায়, কৃষকরা এ বছর লাভবান হবেন।এছাড়া এসএসিপি প্রকল্পের আওতায় মগর ইউনিয়নে তরুণ উদ্যোক্তা আল আমিন ফকিরকে একটা প্রদর্শনী দেওয়া হয়েছে। যার মাধ্যমে তরমুজ চাষ করে তিনি লাভবান হয়েছেন।

উপজেলা কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক কৃষি কর্মকর্তা মোঃ মহাসিন হাওলাদার বলেন, আলআমিন অত্যান্ত উদ্যমী ও পরিশ্রমি উদ্যোক্তা। ইতপূর্বে তরমুজ সহ নানা ফসল ফলিয়ে কৃষতদের মাঝে উৎসাহ উদ্দীপনা সৃষ্টি করেছেন। তিনি আধুনিক কৃষদের আইকন। তিনি জাতীয় স্বীকৃতির প্রাপ্তির যোগ্য।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ স্বাধীন বিডি
Theme Customized By Shakil IT Park