1. admin@shadin-bd.com : admin :
  2. shadinbd@gmail.com : shadin : Nazmul Mondol
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৮:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ -
ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে নলছিটিতে বেড়েছে নদীর পানি মিতু সেতু চেরিট্যাবেল সোসাইটির উদ্যোগে তামাক বিরোধী অবস্থান কর্মসূচী পালিত শ্রীপুরে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে পরকিয়া সহ ১২ লক্ষ টাকা ঘুষ নেওয়া অভিযোগ শ্রীপুর উপজেলা আ,লীগের সভাপতির পরাজয় ছাত্রলীগ নেতার কাছে নলছিটি উপজেলা চেয়ারম্যান পদে সালাহ উদ্দিন খান সেলিম বিজয়ী ঢাকা কাস্টমস্ এজেন্টস্ এসোসিয়েশন নির্বাচনের মিজান লাভলু বাশার পরিষদের মতবিনিময়  শ্রীপুরে আহমেদ আবু জাফর এর পিতার মৃত্যুতে শোক সভা অনুষ্ঠিত। গাজীপুরে প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলরের প্রভাব খাটিয়ে ছেলেকে বর্জ্য অপসারণের কাজ দেওয়ার অভিযোগ পুকুরে গোসল করতে নেমে প্রাণ গেল নির্মাণ শ্রমিকের! উত্তরায় ড্রাইভওয়ে অবমুক্ত করে ট্রাফিক উত্তরা পশ্চিম জোন

তিন দিনেও খোঁজ মেলেনি নদীতে গঙ্গা স্নানে গিয়ে নিখোজ স্কুলছাত্রের

  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২৪
  • ২২ বার পঠিত

তিন দিনেও খোঁজ মেলেনি নদীতে গঙ্গা স্নানে গিয়ে নিখোজ স্কুলছাত্রের

আমির হোসেন, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ

ঝালকাঠির নলছিটিতে ঠাকুমার সাথে সুগন্ধা নদীতে গঙ্গা স্নানে গিয়ে তৃতীয় শ্রেনীর এক স্কুলছাত্র নদীর স্রোতে তলিয়ে গেছে। শনিবার (১৩এপ্রিল) সকাল ১১টায় পৌর এলাকার কলবাড়ী সংলগ্ন সুগন্দা নদীর তীরে ঘটে এই মর্মান্তিক দূর্ঘটনা ঘটনা।

তিন দিন অতিবাহিত হলেও এখনো খোঁজ পাওয়া যায়নি স্কুলছাত্র আদিত্যর। শনিবার থেকে এক যোগে নলছিটি ফায়ারসার্ভিস, বরিশাল ফায়ারসার্ভিসের ডুবুরি দল, বিআইডব্লিউটিএর ডুবুরি দল, কোস্টগার্ডের ডুবুরি দল টানা ২ দিন খোজাখুজি করেও ডুবে যাওয়া আদিত্যের সন্ধান করতে পারেনি। বর্তমানে স্থানীয়রা বেশকয়েকটি ট্রলার নিয়ে মাইকিং করে সুগন্ধা নদীতে খোজাখুজি করছে। স্থানীয়দের ধারনা ৩য় দিনে হয়তো ডুবেযাওয়া আদিত্যের দেহ ভেসে উঠতে পারে।

নিখোঁজ আদিত্য চক্রবর্তী নলছিটি পৌর এলাকার আদর স্টুডিও’র ও বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ নলছিটি শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক শিমুল চক্রবর্তীর একমাত্র ছেলে আদিত্য চক্রবর্ত্তী আদি (০৮)। সে পৌরসভার বন্দর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেনীতে লেখা পড়া করত।

শনিবার সকালে ঠাকুমা সাথে পৌষসংক্রান্তি উপলক্ষে গঙ্গা স্নানের জন্য নদীর তীরে আসে। এসময় তার ঠাকুমা স্নানে ব্যস্ত থাকায় পা পিছলে আদিত্য নদীতে পরে যায়। ঠাকুমা তাকে ধরার চেষ্টা করলেও রাখতে পারেননি নদীর স্রোত তলিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, নদীর এই অংশের গভীরতা অনেক বেশি। তবে তীর থেকে সেটা বোঝার উপায় নেই দেখলে মনে হবে চর। তাই এখানে স্রোতের তীব্রতা অনেক বেশি যার কারনেই ছেলেটি স্রোতের টানে পানির নিচে তলিয়ে গেছে।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ স্বাধীন বিডি
Theme Customized By Shakil IT Park