1. admin@shadin-bd.com : admin :
  2. shadinbd@gmail.com : shadin : Nazmul Mondol
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ -
ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ফারুক হোসেন মৃধা। কাওরাইদ বাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আশরাফুজ্জামান মামুন শ্রীপুরে জোরপূর্বক জমি দখল, আহত-৩ সুপারম‍্যাক্স হেলথ কেয়ার হাসপাতালের সাথে এশিয়ান নারী ও শিশু অধিকার ফাউন্ডেশনের কর্পোরেট চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত কলকাতা স্টাইলে কাতল মাছের মধুক্ষীরা! স্কুলে ঝড়েপড়া শিক্ষার্থীদের আটকাতে হবে প্রতিমন্ত্রী রুমানা আলী টুসি “ বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের জেসিএমএস বিভাগের শিক্ষার্থীদের ইন্টার্নশিপ সমাপনী  প্রেজেন্টেশন অনুষ্ঠিত বড় ধরনের অর্থ বহনের ক্ষেত্রে মানি এস্কর্ট সেবা দিচ্ছে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ শ্রীপুর উপজেলার চেয়ারম্যান দুর্জয়ের সুস্থতা কামনায় শ্রমিক লীগের দোয়ার আয়োজন। শ্রীপুরের ঐতিহ্যবাহী নবারুন ক্লাবের নবনির্বাচিত কমিটির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

বেনাপোল আবারও চোরাচালানি মোমিন এর ছেলে শামিম পাসপোর্টযাত্রীদের ভ্রমন কর ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগে আটক

  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৯৭ বার পঠিত

মোঃ নজরুল ইসলাম বিশেষ প্রতিনিধ

আবারও পাসপোর্টযাত্রীদের ভ্রমন কর ফাঁকি দিয়ে আটক হয়েছে শামিম চৌধুরী নামের (৩২) এক যুবক। বেনাপোল চেকপোষ্টের সিটি আবাসিক হোটেলের মালিক আলোচিত স্বর্ণ চোরাচালানি মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি মোমিন চৌধুরীর ছেলে শামিম চৌধুরী ভ্রমন কর ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগে হাতে নাতে আটক হয় চেকপোষ্ট বন্দর নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে। এসময় তার কম্পিউটার ও প্রিন্টার মেশিন জব্দ সহ বেনাপোল পোর্ট থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে বন্দর কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টার সময় তাকে আটক করা হয় ।

সুত্র মতে শামিম দির্ঘদিন ধরে সরকারের রাজস্ব এ ভাবে ফাঁকি দিয়ে কোটি কোটি টাকার মালিক বনে গেছে। সে এর আগে গত ১৫ জুলাই ২০২২ ইং তারিখে ভ্রমন কর ফাঁকির অভিযোগে আটক হয়। আর এই ট্যাক্স ফাঁকির দায়ে কাস্টমস এর মামলায় কয়েকজন বেনাপোল চেকপোষ্টের নিরাপরাধী ব্যক্তি হাজত বাস করে। শামিম ঐ মামলায় জামিন পেয়ে থানা থেকে তার জব্দকৃত কম্পিউটার প্রিন্টার মেশিন সহ আনুসঙ্গিক জিনিসপত্র এনে আবারও বেনাপোল চেকপোষ্টে নিয়োজিত এন এস আই, ডিজিএফআই সহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সামনে ভ্রমন কর ফাঁকির ব্যবসা করলেও কেউ এ গুলো নিয়ে মাথা ব্যাথা করে না। সে সকালে যাত্রীদের এসব ট্যাক্স ফাঁকি দিত ;কারন ঐ সময় ভারত গামী যাত্রীদের অনেক ভীড় হয় চেকপোষ্ট এলাকায় । ভীড়ের চাপে কর্তৃপক্ষ এসব খেয়াল না করায় সুযেগে সৎ ব্যবহার করে।

বেনাপোল চেকপোষ্ট আন্তর্জাতিক প্যাচেঞ্জার টার্মিনালের পিমা নামে একটি নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মী সাকিবুন নাহার মিম বলেন, আমি যাত্রীদের ভ্রমণ কর ও পোর্ট কর দুটি দেখার সময় সন্দেহ মনে হয়। এসময় এপিবিএন পুলিশ, আনসার সদস্যদের বিষয়টি অবগত করা হলে তারা যাচাই বাছাইয়ের পর বিষয়টি জাল প্রমানিত হয়। পরে শামিমকে আটক করে পুলিশের সহযোগিতায় তার মেশিনপত্র জব্দ করা হয়। এরপর তাকে বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ নিয়ে যায়।

বন্দরের যাত্রী টার্মিনালের নিরাপত্তার দায়িত্বে আনসার এর পিসি শামছুর রহমান বলেন, শুনেছি এর আগেও এই শামিম এর নামে ট্যাক্স ফাঁকির মামলা হয়েছে।

বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ এর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামাল হোসেন ভুইয়া বলেন, পাসপোর্ট যাত্রীদের ট্যাক্স ফাকির দায়ে শামিম নামে একজন প্রতারককে আটক করা হয়েছে। এর আগেও তার নামে জাল ট্যাক্স কাটার অপরাধে মামলা হয়। সে মামলায় বর্তমানে জামিনে আছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে যশোর জেল হাজতে পাঠানো হবে।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ স্বাধীন বিডি
Theme Customized By Shakil IT Park