1. admin@shadin-bd.com : admin :
  2. unews.mahmud@gmail.com : Mahmud hasan : Mahmud hasan
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০৫:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ -
উত্তরা পাবনা সোসাইটির সভাপতি, ড.আমিন উদ্দিন, নির্বাহী সভাপতি বাবুল ও সাধারণ সম্পাদক, মিঠু কাপাসিয়া মডেল সরকারি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক শাহেলী নাছরিনের যোগদান প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে তৎপর খসরু চৌধুরী গলদাপাড়া নিয়ামত আলী উচ্চ বিদ্যালয় ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক  অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত।  শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী দূর্গাপুরে দুটি গ্রামীণ রাস্তার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন উত্তরা ১৩ সোসাইটি নির্বাচন: সভাপতি ব্রিগেডিয়ার জাহিদ সেক্রেটারি শাহনাজ পান্না কাপাসিয়ায় খামারিদের মাঝে বিনামূল্যে মিল্কিং মেশিন বিতরণ ব্রাহ্মণবাড়িয়া ট্রাক অটোরিকশা মুখোমুখি সংঘষে নিহত -২ পত্নীতলায় জাতীয় ভোটার দিবস পালন

মহীয়সী নারী সোহানা শারমিন সুপ্রিম কোর্টের সদস্য ও হাইকোর্ট বিভাগের আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত।

  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৯ আগস্ট, ২০২৩
  • ১৬০ বার পঠিত

মহীয়সী নারী সোহানা শারমিন সুপ্রিম কোর্টের সদস্য ও হাইকোর্ট বিভাগের আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ “থেমে না যাওয়ার গল্প” বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের সদস্য এবং হাইকোর্ট বিভাগের আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হলেন সোহানা শারমিন। কক্সবাজার জেলার রামু থানার খুনিয়া পালং ইউনিয়নের কৃতিসন্তান (জহিরুল হক শিকদারের বড় মেয়ে) ও ময়মনসিংহ জেলার ত্রিশাল থানার বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও রাজনৈতিক ব্যক্তি নাফিজ মাহবুব এর স্ত্রী এ্যাডভোকেট সোহানা শারমিন ন্যায়-নীতি কর্মদক্ষতা ও সুনামের সাথে ঢাকা জজ কোর্ট ও হাইকোর্ট ডিভিশনে তালিকাভুক্ত হয়ে গত চার বছর যাবৎ ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আইনী পেশায় নিজেকে নিযুক্ত রেখেছেন। এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের মাধ্যমে দেশ ও জাতির কল্যাণে কর্মের মাধ্যমে নিজেকে উৎসর্গ যাচ্ছেন। বাংলাদেশের একটি স্বনামধন্য ইউনিভার্সিটি থেকে এলএলবিতে মাস্টার্স করার পর প্রথমে নিম্ন আদালতে এবং পরবর্তীতে উচ্চ আলাদতে আইনজী হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। সামাজিকতার কবলে বৈবাহিক বন্ধনের টানাপোড়েনে যেখানে অধিকাংশ নারীরাই পিছিয়ে যায় কিংবা থেমে যায়। সেখানে দুই সন্তানের জননী হয়েও এই মহীয়সী সংগ্রামী নারী নিজের সংসার ও নিজের ক্যারিয়ার গড়েছেন সমতালে।
একান্ত আলাপচারিতায় তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, আমি সমাজের সুবিধাবঞ্চিত নারী ও শিশুদের বিনামূল্যে আইনি সেবা ও সহযোগিতা করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। আর আমি মনে করি সমাজের প্রতিটি মেয়েদের নিজের জন্য, একটা সুনির্দিষ্ট পরিচয় তৈরি করা উচিত। পৃথিবীতে কেউ কাউকে চেয়ার ছেড়ে দেয়না, নিজের কর্মদক্ষতা এবং সততার সঙ্গে অর্জন করতে হয়। সৎ উদ্দেশ্যে পরিশ্রম করলে সফলতা অবশ্যই আসবে, যদিও নারীদের চলার পথ কখনোই সুগম ছিল না, আর একজন বউ একজন মা হিসেবে সেই পথ যথেষ্ট কঠিন। আগামী পাঁচ বছর পর নিজেকে কোথায় দেখতে চাইবেন, আজই সেই পরিকল্পনা এবং লক্ষ্য স্থির করতে হবে আপনাকে। নারীদের জন্য পরিবার হচ্ছে বড় শক্তি।
বাংলাদেশের অধিকাংশ নারী প্রথম বঞ্চনার শিকার হয় মোটামুটিভাবে পরিবার কিংবা কাছের মানুষের থেকে তাই নারীদের এগিয়ে যাওয়ার পথটা সুগম করতে হয় মোটামুটি পরিবারকে। আমার স্বামী নাফিজ মাহবুব একজন সমাজসেবক ও রাজনীতিবিদ বলেই হয়তো সবসময় আমার সহযোদ্ধা হিসেবে পাশে ছিলেন, তাই আমার পথচলাটা মোটামুটি সহজ ছিল।
পরিশেষে বলতে চাই, মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য সবসময় সৎ চেষ্টা থাকবে এবং সব ধরনের অধিকার বঞ্চিত নারীদের নিয়ে কাজ করে যাওয়াই আমার একমাত্র লক্ষ্য।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ স্বাধীন বিডি
Theme Customized By Shakil IT Park