1. admin@shadin-bd.com : admin :
  2. shadinbd@gmail.com : shadin : Nazmul Mondol
বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ১০:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ -
স্কুলে ঝড়েপড়া শিক্ষার্থীদের আটকাতে হবে প্রতিমন্ত্রী রুমানা আলী টুসি “ বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের জেসিএমএস বিভাগের শিক্ষার্থীদের ইন্টার্নশিপ সমাপনী  প্রেজেন্টেশন অনুষ্ঠিত বড় ধরনের অর্থ বহনের ক্ষেত্রে মানি এস্কর্ট সেবা দিচ্ছে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ শ্রীপুর উপজেলার চেয়ারম্যান দুর্জয়ের সুস্থতা কামনায় শ্রমিক লীগের দোয়ার আয়োজন। শ্রীপুরের ঐতিহ্যবাহী নবারুন ক্লাবের নবনির্বাচিত কমিটির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ফুটপাতে অবাধে চলছে মুখরোচক খাবার হালিম বিক্রি,ধোঁকা খাচ্ছে সাধারণ মানুষ কাপাসিয়ায় স্মার্ট ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু বেনাপোলে কাস্টমস কর্মকর্তার উপর সন্ত্রাসী হামলা শ্রীপুরে স্বামীর তালাবদ্ধ ওষুধের দোকানে স্ত্রীর গলা কাটা লাশ চলতি মাসেই প্রেমিককে বিয়ে করছেন ঐশ্বরিয়া!

মাধবপুরে দুর্গোৎসবকে সামনে রেখে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্থ ভাস্কররা

  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৫ অক্টোবর, ২০২৩
  • ১৬১ বার পঠিত

মাধবপুরে দুর্গোৎসবকে সামনে রেখে
প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্থ ভাস্কররা

মোঃএরশাদ আলী,মাধবপুর (হবিগঞ্জ),হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় দূর্গা পূজাকে সামনে রেখে প্রতিমা তৈরীতে এখন মহাব্যস্থ সময় কাটাচ্ছেন প্রতিমা তৈরির ভাস্কররা। পূজা মন্ডপগুলোর প্রস্তুতির কাজ চলছে পুরোদমে। হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয়া দূর্গা পুজার আগমনকে সামনে রেখে ভিন্ন আমেজে উৎসব মুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে উপজেলার সর্বত্র। উপজেলার বুল্লা, হরিশ্যামা ও কাটিয়ারা এলাকার প্রতিমা ভাস্করদের সাথে আলাপ কালে তারা জানান প্রতিমা তৈরির উপকরন এটেল মাটি, বাশঁ, সুতলী, লোহা ও তারের দামসহ সব ধরনের উপকরনের দাম আগের চেয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে। সে জন্য অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর প্রতিমা তৈরিতে খরচ বহুগুনে বৃদ্ধি পাবে বলে জানান ভাস্কররা। তার পরও প্রতিযোগিতা মূলক ভাবে মাধবপুরে চলছে ভিন্নতর আকৃতির প্রতিমা তৈরীর কাজ। মাধবপুর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি পংকজ কুমার সাহা জানান, এখন পর্যন্ত উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নে ১০৭টি ও পৌরসভায় ১৩টি সহ মোট ১২০টি পূজা মন্ডপে শারদীয় পূজা উদযাপনের প্রস্তুতি চলছে। আগামী ২০ অক্টোবর শারদীয় দূর্গা দেবীর বোধন ও ষষ্ঠাদি কল্পালম্ভের মধ্য দিয়ে পূজা অনুষ্ঠান শুরু হবে। ২৪ অক্টোবর দশমী পূজা শেষে প্রতিমা বিসজর্নের মধ্য দিয়ে এ উৎসবের সমাপ্তি হবে। হরিশ্যামা গ্রামের প্রতিমা ভাস্কর হরিপদ পাল জানান, গত প্রায় ২ মাস ধরে প্রতিমা তৈরির কাজ করেছেন। এবার তিনি গতবারের চেয়ে বেশি প্রতিমা তৈরির বায়না পেয়েছেন। অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর উপকরনের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রতিমার মুজুরীও বাড়িয়ে নেওয়া হচ্ছে। এবার সর্বনিম্ন ৪০ হাজার থেকে সর্বোচ্চ ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত তার তৈরি প্রতিমার মুজুরী নেওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যেই তার তৈরি প্রতিমাগুলোর নির্মাণ কাজ শেষ হয়ে এসেছে। এখন থেকে শুধু রং তুলির কাজ বাকি। মাধবপুরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) নির্মলেন্দু চক্রবর্তী জানান, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে দুর্গাপূজা উদযাপনের জন্য পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। শারদীয় দুর্গোৎসব চলাকালীন যাতে কোন দুষ্কৃতিকারী যেনো কোনো প্রকার ক্ষতি না করতে পারে সেজন্য আয়োজক কমিটিকে সর্তক থাকতে বলা হয়েছে এবং পুলিশ প্রশাসনে টহল টিম সর্তক রয়েছে। হিন্দুধর্মাবলম্বীরা যেন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে তাদের ধর্মীয় উৎসব উদযাপন করতে পারেন সেজন্য প্রয়োজনীয় সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে। আশা করছি প্রতি বছরের মতো এবারও কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে শারদীয় দুর্গোৎসব পালিত হবে।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮ স্বাধীন বিডি
Theme Customized By Shakil IT Park